মাদককে ‘না’ বলাটা কঠিন তবু বলতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক | ডিসেম্বর ০৩, ২০১৫ |

‘অধিকাংশ তরুণ শিক্ষার্থীই বন্ধুদের চাপে মাদক নেয়। এ ক্ষেত্রে তোমাকে অবশ্যই স্পষ্টবাদী হতে হবে। “না” বলাটা কঠিন হলেও বলতে হবে। নিজেকে রক্ষা করার দায়িত্ব তোমারই। তুমি স্পষ্ট “না” বলে দেবে। “না” বলতে পারাটাই আধুনিকতা।’
গতকাল বুধবার আফতাবনগরে ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত ‘আসুন মাদকমুক্ত থাকি’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে কথাগুলো বলেন প্রথম আলো ট্রাস্ট মাদকবিরোধী আন্দোলনের উপদেষ্টা ও মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মোহিত কামাল। মাদক সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের নিয়ে প্রথম আলো ট্রাস্ট মাদকবিরোধী আন্দোলন ও ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সংগঠন রোটারেক্ট ক্লাব এই অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেন।
অনুষ্ঠানে ছাত্র কল্যাণ উপদেষ্টা নাহিদ হাসান খান বলেন, ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয় মাদকমুক্ত ক্যাম্পাস।
প্রথম আলো ট্রাস্টের কর্মসূচি ব্যবস্থাপক ফেরদৌস ফয়সাল বলেন, ‘মাদকবিরোধী আন্দোলনে তোমাদেরও যোদ্ধা হতে হবে। তোমার ভাই বা বন্ধুকে মাদক থেকে রক্ষা করতে হবে। যদি কেউ আসক্ত হয়েও পড়ে, তার জন্য চিকিৎসার পাশাপাশি পরিবারের সদস্যদের বন্ধুত্বপূর্ণ সহযোগিতা লাগবে।’
অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা মনোরোগ বিশেষজ্ঞের সঙ্গে প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নেন। শিক্ষার্থীরা তাঁকে খোলামেলা প্রশ্ন করলে তিনি পরামর্শ সহায়তা দেন। এ সময় বিবিএ শিক্ষার্থী আশিকুজ্জামান বলেন, ‘লুকিয়ে কোনো বন্ধু মাদক গ্রহণ করলে সে ক্ষেত্রে বোঝার উপায় কী? আর তাকে কি বাসায় রেখে চিকিৎসা সম্ভব?’ উত্তরে মোহিত কামাল বলেন, ‘মাদক গ্রহণ করলে বাহ্যিক কিছু লক্ষণ প্রকাশ পাবে, জীবনযাত্রার পরিবর্তন হবে, যেমন আগে যা করত না, সেসব আচরণ করবে। মেজাজ খিটখিটে হবে, মিথ্যা বলবে—এসব লক্ষণ দেখে বোঝা যাবে। চিকিৎসক রোগীর অবস্থা দেখে বলে দেবেন বাসায় না মাদকাসক্তি নিরাময়কেন্দ্রে চিকিৎসা করাতে হবে।’
আরেক বিবিএ শিক্ষার্থী অনিন্দ্য সাহা জানতে চান, ‘মাদকের সঙ্গে কি সৃষ্টিশীল কাজের কোনো সম্পর্ক আছে? সৃষ্টিশীল কাজ করতে মাদক গ্রহণ করতে হবে, এটা কি ঠিক?’ উত্তরে বিশেষজ্ঞ জানান, ‘সৃষ্টিশীল কাজের সঙ্গে মাদকের কোনো সম্পর্ক নেই। তোমরা জেনে থাকবে, মাদক গ্রহণের জন্য অলিম্পিক গেমসের অনেকের খেতাব কেড়ে নেওয়া হয়।’
অনুষ্ঠানে উপস্থিত সব শিক্ষার্থীই মাদক না নেওয়ার প্রতিজ্ঞা করেন। সবশেষে সংগীত পরিবেশন করেন ক্লোজআপ তারকা সাব্বির জামান। সাব্বির জানান, তিনি কখনো সিগারেট খাননি। বন্ধু নির্বাচনের ক্ষেত্রে তিনি মাদকসেবী নন, এই বিষয়টাকে প্রাধান্য দেন।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয় রোটারেক্ট ক্লাবের মডারেটর চৌধুরী ওমর শরীফ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রোটারেক্ট ক্লাবের সদস্য তাসনুভা জাহান।